Outsourcing: +88 01970 900 933

Outsourcing: +88 01714 262 717

Website Dept: +88 01935 900 933

Software Dept: +88 01683 936 977

প্রফেশনাল এসইও এন্ড অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং কোর্স


আপনি পড়াশুনা/চাকুরীর পাশাপাশি অনলাইন থেকে আয় করতে চান? তাহলে ক্যারিয়ার গড়ুন মুক্ত পেশায় ফ্রিল্যান্সিং-এ
আগামী ১৯-০৬-২০১৯
সকাল ১১.৩০ টার ব্যাচ-এ।
যারা ফ্রিল্যান্সার হতে চান তাদের অনেকেরই প্রথম পছন্দ SEO(Search Engine Optimization) & Digital Marketing কারন SEO(Search Engine Optimization) & Digital Marketing শেখাটা মোটামুটি সহজ, মার্কেটপ্লেসেও যথেস্ট কাজ আছে, 
ফ্রিল্যান্সিং খাতে বাংলাদেশ বেশ ভাল অবস্থানে আছে, বিশ্বে বাংলাদেশের দক্ষ পেশাদারদের দিয়ে কাজ করানো হচ্ছে শত কোটি টাকার। হিসেব মতে বাংলাদেশে ফ্রিল্যান্সার আছে ৭ লক্ষাধিক।



ফ্রিল্যান্সিং ও আউটসোর্সিং কাজ শুরু করার আগে করনীয় বিষয় গুলো কি?
১। আগে জানুন এ খাতে কোন কোন ফিল্ড আছে। (রেফারেন্সে লিংক)
২। তারপর ভেবে দেখুন আপনার এখন যে ব্যাকগ্রাউন্ড, স্কিল এবং ইন্টারেস্ট; সেটার সাথে কোন ফিল্ড মিলে যায়।
৩। বিভিন্ন ফ্রিল্যান্স মার্কেটপ্লেসে ঐ ফিল্ড গুলোর এখন পোস্ট করা জব গুলো ঘেঁটে দেখুন, বুঝার চেষ্টা করুন এ ধরণের কাজে কি কি স্কিল লাগে।
৪। ঠিক করার পর এবার চেষ্টা করুন কোথা থেকে শেখা যায়, অনলাইনেই শেখা যায় ধৈর্য থাকলে, কোন ট্রেনিং সেন্টার থেকে শিখতে পারেন। এদেশে প্রথম সারির ফ্রিল্যান্সাররা শিখেই সফল।
৫। কারও কাছ থেকে পরামর্শ নিবেন এই সময়ে এসে, স্কিল্ড হওয়ার পর পরামর্শ নিন।
৬। চেষ্টা করতে থাকেন, ফেইল করলে ভুল গুলো শুধরে আবার ট্রাই করেন। যে কাজে আপনাকে এক্সেপ্ট করেনি, সে কাজ নিজেই করুন, সেম্পল প্রজেক্ট হিসেবে প্র্যাক্টিসও হবে, পোর্টফোলিও হবে।
৭। ধৈর্য ধরে নিজেকে আরও স্কিল্ড বানানোর জন্যে নতুন নতুন কিছু স্টাডি করুন।
৮। যেকোন একটা বিষয়ে এক্সপার্ট হতে হবে। বাংলাদেশে আউটসোর্সিং কোচিং সেন্টার আছে, সেখান থেকে এ বিষয়ে শেখা যায়। তাছাড়া নিজে নিজে হাতে কলমে চেষ্টা করাটা খুবই দরকারি। ভিডিও টিউটোরিয়াল দেখেও অভিজ্ঞ হবার পথে এগিয়ে যাওয়া যায়।
আমাদের অফিসের ঠিকানা_
৮৭, বিএনএস সেন্টার, লিফট-৫, ৬ষ্ঠ তলা, রুম নম্বর- ৬১0,
সেক্টর # ০৭, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০।
হ্যালো : ০১৯৭০ ৯০০ ৯৩৩, ০১৭১৪-২৬২-৭১৭।
বিস্তারিত জানতে ভিজিট করুন : 
http://bit.ly/2Or5wL2
http://bit.ly/2HBO7yv
http://bit.ly/2TW0JqW