Outsourcing: +88 01970 900 933

Outsourcing: +88 01714 262 717

Website Dept: +88 01935 900 933

Software Dept: +88 01683 936 977

Course Details

IoT - Internet of Things

আইওটি কী এবং আইওটিতে ক্যারিয়ার গড়ার উপায়
আইওটির সম্পূর্ণ রূপ হচ্ছে ইন্টারনেট অফ থিংস। ইন্টারনেট অফ থিংস মূলত একটি কম্পিউটার কন্সেপ্ট যেখানে প্রত্যেকটি কম্পিউটারকে একসাথে যুক্ত রাখার ব্যাপারে কাজ করা হয় এবং নিত্যদিনের ব্যবহৃত সব ধরণের ফিজিক্যাল ইলেকট্রনিক্স যন্ত্রাদিগুলোকে ইন্টারনেটের সাথে সংযুক্ত রাখাকে বোঝায়। এটা মূলত এক ধরণের ভার্চুয়াল নেটওয়ার্ক যেখানে সব ধরণের ইলেকট্রনিক্স, সফটওয়্যার, সেন্সর, অ্যাকচুয়েটরস এবং নেটওয়ার্ক সুইচ ইলেকট্রনিক অথবা ভার্চুয়াল ক্যাবল দ্বারা যুক্ত থাকে ও বিশেষ প্রয়োজনে ডেটা আদান প্রদান করে থাকে।
আপনি যদি আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স, বিগ ডেটা অ্যানালাইসিস, রোবোটিক্স ইত্যাদিতে আগ্রহী হয়ে থাকেন তাহলে আপনি
আইওটিতে ক্যারিয়ার গড়তে পারেন। আইওটিতে ক্যারিয়ার গড়ার জন্য নির্দিষ্ট কোনো স্কুল, কলেজ কিংবা ইউনিভার্সিটি নেই। এক্ষেত্রে আপনাকে মাইক্রোপ্রসেসর, ইলেকট্রনিক্স, আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স, সেন্সর, বিগ ডেটা অ্যানালাইসিস ইত্যাদির সাথে সংযুক্ত চাকরিতে ক্যারিয়ার গড়তে হবে। প্রায় প্রতিটি কোম্পানিতেই আইওটিতে দক্ষ ব্যক্তির প্রয়োজন হয়ে থাকেন। বড় বড় কোম্পানিতে দক্ষ ও ক্রিয়েটিভ আইওটি প্রফেশনালদের নিয়োগ দেয়া হয়। চলুন তাহলে দেখে আসি, কীভাবে আইওটিতে ক্যারিয়ার গড়া সম্ভব।
একজন আইওটি প্রফেশনাল কী কী কাজ করে থাকেন?
কোম্পানি বা অরগানাইজেশনভেদে একজন আইওটি প্রফেশনালের কাজ ভিন্ন ভিন্ন হয়ে থাকে। যদিও বেশিরভাগ অরগানাইজেশন বা কোম্পানিতে, একজন আইওটি প্রফেশনালকে যেসব কাজ করতে হয়, সেগুলো দেখে নিন।
o    টেকনোলজি সম্পর্কিত যেকোনো প্রোগ্রাম ও পদ্ধতির জন্য স্ট্র্যাটেজিক প্ল্যান তৈরি করা।
o    সিস্টেম টেস্টিংয়ের মাধ্যমে এর ইনফরমেশন ডেভেলপ করা ও সংযুক্ত করা।
o    ইনফরমেশন প্রটেকশন স্ট্র্যাটেজি সম্পর্কে কোম্পানির সকল বিভাগকে সচেতন করে তোলা।
o    নেটওয়ার্ক সার্ভার সিস্টেম, ক্লাউড সিস্টেম, নেটওয়ার্কিং এবং অপারেটিং সিস্টেমের অবস্থা ও গতিবিধি সম্পর্কে ডেভেলপারদের জানানো।
o    সিকিউরিটি সিস্টেমের ভলনারেবিলিটি, সাইবার থ্রেট, নেটওয়ার্ক ও হোস্ট সিস্টেম ইভেন্ট সম্পর্কে ডেভেলপারদের সচেতন করা।
o    সিস্টেম ডিজাইন ও ডেভেলপিংয়ে, ডিজাইনার ও প্রোগ্রামারদের সহায়তা করা।
o    অপারেটিং সিস্টেমের সাথে সম্পৃক্ত হার্ডওয়্যার ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট করা।
o    বিভিন্ন হার্ডওয়্যার ও ইলেকট্রনিক্স ডিভাইসের আপগ্রেড করা।
o    অপারেটিং সিস্টেমের ইমপ্লিমেন্টেশন স্পিড, পারফর্ম্যান্স ও ফাংশনালিটি বৃদ্ধি করা।
o    সিস্টেমের মধ্যে আপগ্রেডেড সফটওয়্যার ইন্সটল করা ও এর ফাংশনালিটি টেস্ট করা।
o    বিভিন্ন ডিভাইসের জন্য সিস্টেম ট্রাবলশ্যুট করা ও কম্প্যাটিবিলিটি টেস্ট করা।
o    প্রসেসর, সার্ভার ও বিভিন্ন ধরণের নেটওয়ার্ক সুইচ ও সার্কিটের পরীক্ষা করা ও পারফর্ম্যান্স বৃদ্ধি করা।
o    বিভিন্ন কোম্পানির আইটি ও সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্ট ডিপার্টমেন্টের সকল সিস্টেমের দেখাশোনা করা।
o    নেটওয়ার্ক এক্সপ্লোয়েশনে দলগতভাবে কাজ করা।
o    বিভিন্ন সিস্টেম, সফটওয়্যার, হার্ডও্য়্যার এবং নেটওয়ার্কের সিকিউরিটি প্রদান করা।
o    সিস্টেম ও নেটওয়ার্কের অনধিকার প্রবেশ, মডিফিকেশন ও ডেস্ট্রাকশন ফেজ থেকে রক্ষা করা।
o    বিভিন্ন সিস্টেমের কন্ট্রোল স্ট্রাকচার, রিসোর্স ও এক্সেস প্রিভিলিজেস রক্ষা করা।
o    সিস্টেম ও নেটওয়ার্কের ভালনারেবিলিটি, রিস্ক অ্যানালাইসিস ও সিকিউরিটি অ্যাসেসমেন্ট পরীক্ষা করা।
o    বিভিন্ন সফটওয়্যার, সিস্টেম ও নেটওয়ার্কের অ্যাবনরমালিটি ও ভায়োলেশনের রিপোর্ট তৈরি করা।
o    আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স ক্যাটাগরিতে নেটওয়ার্কের সাথে সম্পর্কিত সব ধরণের সিস্টেম ডেভেলপ করা।
o    ইলেকট্রনিক্স যন্ত্রাদির সাথে নেটওয়ার্কের কানেকশন নিয়ে কাজ করা।
o    বিগ ডেটা অ্যানালাইসিস নিয়ে কাজ করা।

একজন আইওটি প্রফেশনালের ক্যারিয়ার কেমন হতে পারে?
একজন আইওটি প্রফেশনাল হিসেবে ক্যারিয়ার গড়ার পূর্বে আপনি, সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার, কম্পিউটার হার্ডওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার, নেটওয়ার্ক ইঞ্জিনিয়ার, কম্পিউটার সিকিউরিটি স্পেশালিষ্ট, নেটওয়ার্ক ডেভেলপার, ওয়েব ডেভেলপার, প্রোগ্রামার অথবা ইলেক্ট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারের চাকরি দ্বারা ক্যারিয়ার শুরু করতে পারেন। উপরোক্ত পদগুলো থেকে অভিজ্ঞতা অর্জন করে ফটোনিক্স ইঞ্জিনিয়ার, সিস্টেমস ইঞ্জিনিয়ার, নেটওয়ার্ক অ্যাডমিনিস্ট্রেটর, সিনিয়র কম্পিউটার প্রোগ্রামার অথবা কম্পিউটার সিস্টেমস টেস্টার এবং সর্বোপরি একজন আইওটি প্রফেশনাল হিসেবে ক্যারিয়ার গড়তে পারবেন।
একজন সিনিয়র লেভেলের আইওটি প্রফেশনাল হওয়ার পূর্বে আপনার অভিজ্ঞতার ঝুলিতে, হার্ডওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিং, সিস্টেমস অ্যাপ্লিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং, কম্পিউটার আর্কিটেকচার, সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্ট, সিস্টেম প্রোগ্রামার, সেমিকন্ডাক্টর আর্কিটেকচার, আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স, বিগ ডেটা অ্যানালাইসিসের মতো কিছু পেশার দক্ষতা ও যোগ্যতা থাকলে, সিনিয়র লেভেলের আইওটি প্রফেশনাল হওয়াটা অনেক সহজ হয়ে যাবে আপনার জন্য।
একজন আইওটি প্রফেশনাল হিসেবে ক্যারিয়ার গড়তে চাইলে,
আপনাকে যে সকল বিষয়ে পারদর্শী হতে হবে তা হচ্ছে,
o    টেকনিক্যাল ও নন-টেকনিক্যাল বিষয় সম্পর্কে অভিজ্ঞ হতে হবে।
o    অ্যানালিটিক্যাল দক্ষতা থাকতে হবে।
o    নেটওয়ার্ক ডেভেলপমেন্ট ও ম্যানেজমেন্ট সম্পর্কে অভিজ্ঞ হতে হবে।
o    আইটির উপর বেশ ভালো দক্ষতা থাকতে হবে।
o    মাইক্রোসফট অফিসসহ অন্যান্য অফিস অ্যাপ্লিকেশনের উপর যথেষ্ট অভিজ্ঞ হতে হবে।
o    বিভিন্ন ধরণের সফটওয়্যার ম্যানেজমেন্ট অ্যাপ্লিকেশন ও হার্ডওয়্যারের উপর দক্ষ হতে হবে।
o    কম্পিউটার ও আইটি ইথিকসের উপর পারদর্শী হতে হবে।
o    নিত্যনতুন টেকনোলজির সাথে আপডেটেড থাকতে হবে।
o    যেকোনো প্রোগ্রামিং ভাষার (জাভা, সি,
জাভাস্ক্রিপ্ট, পাইথন ইত্যাদি) সাথে সম্পৃক্ত অ্যালগরিদম ও ফ্লো চার্ট সম্পর্কে জানতে হবে।
o    কম্পিউটারের হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যারের এম্বেডেড সিস্টেমস সম্পর্কে অভিজ্ঞ হতে হবে।
o    টিসিপি/আইপি, কম্পিউটার নেটওয়ার্কিং, রাউটিং এবং সুইচিং সম্পর্কে জানতে হবে।
o    ডিএলপি, অ্যান্টিভাইরাস ও অ্যান্টি ম্যালওয়্যারের উপর দক্ষ হতে হবে।
o    ফায়ারওয়াল, ইনট্রুশাল ডিটেকশন সিস্টেম ও প্রিভেন্টিং প্রোটোকল সম্পর্কে জানতে হবে।
o    সিকিউর কোডিং, ইথিক্যাল হ্যাকিং ও থ্রেট মডেলিং সম্পর্কে সম্পূর্নভাবে দক্ষ হতে হবে।
o    উইন্ডোজ, ইউনিক্স, লিনাক্স (বিভিন্ন ডিস্ট্রো) এবং ম্যাক অপারেটিং সিস্টেমের উপর গভীর দক্ষতা থাকতে হবে।
o    সি, সি প্লাস প্লাস, জাভা, পিএইচপি, পাইথন, জাভাস্ক্রিপ্ট, ওয়েব প্রোগ্রামিং ভাষা (যেমন, এইচটিএমএল, সিএসএস ইত্যাদি), স্ক্রিপ্টিং ভাষা ও শেল প্রোগ্রামিং ভাষায় গভীর দক্ষতা থাকতে হবে।

একজন আইওটি প্রফেশনালের কী ধরনের শিক্ষাগত যোগ্যতা থাকতে হবে?
একজন আইওটি প্রফেশনাল হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু করার পূর্বে হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্ট, আইটি, নেটওয়ার্ক ম্যানেজমেন্ট, কম্পিউটার সায়েন্স, প্রোগ্রামিং অথবা ওয়েব ডেভেলপমেন্ট ও ডিজাইনের উপর কমপক্ষে দুই থেকে চার বছরের স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করা যায়। তারপর, সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্ট ও নেটওয়ার্কের কোর্স করলেই একজন প্রফেশনাল আইওটি ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে ক্যারিয়ার গড়া যায়।
একজন আইওটি প্রফেশনালের বেতন কেমন হতে পারে?
যদি আপনি একজন আইওটি প্রফেশনাল হিসেবে ক্যারিয়ার গড়তে চান, তাহলে আপনার বাৎসরিক বেতন এন্ট্রি লেভেল ও সিনিয়র লেভেলে ভিন্ন ভিন্ন হবে। এন্ট্রি লেভেলের একজন আইওটি প্রফেশনালের বাৎসরিক বেতন হয় সর্বনিম্ন ৪০ লক্ষ টাকা থেকে ৬০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত। সিনিয়র লেভেলের একজন আইওটি প্রফেশনালের বাৎসরিক বেতন হয় সর্বনিম্ন ৬০ লক্ষ টাকা থেকে থেকে ৯৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত।
একজন আইওটি প্রফেশনাল হিসেবে ক্যারিয়ার গড়াটা আপনার জন্য অনেক সহজ হয়ে যাবে, যদি আপনি নেটওয়ার্ক ম্যানেজমেন্ট, আইটি, প্রোগ্রামিং অথবা সিস্টেম ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের উপর বেশ কিছু সার্টিফিকেট অর্জন করতে পারেন।

 

Price: Tk. 15000

Contact

Call: 01970 900 933

Email: uit.uttarainfotech2018@gmail.com